Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

জি,ই,পিঃ  (গ্যারান্টেড এক্সপ্রেস পোস্ট) (২৪ ঘন্টায় বিলির নিশ্চয়তা)

      এই সার্ভিসের মাধ্যমে কম খরচে, স্বল্প সময়ে বাংলাদেশের সকল জেলা ও উপজেলা ডাকঘওে দ্রুত নিশ্চয়তাসহ চিটিপত্র প্রেরণ ও বিলির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। 

ই, এম, এস সার্ভিস (আন্তজার্তিক)

এই সার্ভিসের মাধ্যমে বিদেশে অতি স্বল্পসময়ে চিঠিপত্র, পার্সেল, প্যাকেট ইত্যাদি প্রেরণ করা যায়।

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক

     ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকে নিম্ন বর্ণিত  হিসাব খোলা যায়ঃ

     ১।  সাধারণ হিসাব        লাভের হার    ৭.৫%

     ২।  মেয়াদী হিসাব        লাভের হার   ১৩.২৪% (মেয়াদান্তে পূনঃ বিনিয়োগ করা যায়)

বিভিন্ন প্রকার সঞ্চয় পত্র ইস্যু ও ভাঙ্গানোঃ

     ডাকঘর কর্তৃক বর্তমানে নিম্নবর্ণিত সঞ্চপত্র বিক্রয় করা হয়ে থাকে।

১।  তিনমাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র                  লাভের হার-               ১২.৫৯ %

২।  পেনশনার সঞ্চয় পত্র (পেনশন ভোগীদেও জন্য)        লাভের হার-                 ১৩.১৯%

৩।  পরিবার সঞ্চয় পত্র (মহিলাদের জন্য)                    লাভের হার-                 ১৩.৪৫%

৪।  ৫ বৎসর মেয়াদী বাংলাদেশ সঞ্চয় পত্র                  লাভের হার-                 ১৩.১৯%

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ডাক বিভাগে নূতন প্রবর্তিত সার্ভিস সমূহঃ

ই,এম,টিএস (ইলেকট্রনিক/মোবাইল মানিঅর্ডার সার্ভিস)

মুহুর্তের মধ্যে নগদ টাকা কম খরচে প্রাপকের নিকট পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশের সকল প্রধান ডাকঘর, উপজেলা ও সাব পোস্ট অফিস সমূহে এ সার্ভিস চালু হয়েছে। উদাহরন স্বরুপ একজন প্রেরক ইলেকট্রনিক মোবাইল মানিঅর্ডার সার্ভিস এর মাধ্যমে ফরিদপুর প্রধান ডাকঘর হতে টাকা প্রেরণ করলে প্রাপক বাংলাদেশের  যে কোন প্রধান, উপজেলা এবং সাব পোস্ট অফিস হতে কয়েক মিনিটের মধ্যে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

ফরিদপুর প্রধান ডাকঘরে সার্ভার রুম প্রস্তত করা হয়েছে। যাহা শীঘ্রই চালু হতে যাচ্ছে। এই সার্ভার রুম এর মাধ্যমে ইলেকট্রিক মোবাইল মানিঅর্ডার সার্ভিস, ওয়েষ্টার্ন ইউনিয়ন, সঞ্চয় ব্যাংকের কাজসহ অন্যান্য সেবা সমূহ দ্রুত পাওয়া যাবে।

বর্তমানে ই,এম,টিএস ইসু ও বিলির পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। জনসাধারণের মধ্যে ব্যপক সাড়াজাগানোর লক্ষ্যে ইতোমধ্যে বৈশাখী টিভিসহ অন্যান্য মিডিয়ার মাধ্যমে প্রচারনা চালানো হচ্ছে।

ওয়েস্টান ইউনিয়ন মানিট্রন্সফারঃ

প্রবাসীদের প্রেরিত অর্থ স্বল্প সময়ে প্রাপকের নিকট পৌছে দেওয়া হয়।

কম্পিউটার/ফ্যাক্স এর মাধ্যমে  এ সার্ভিস দেওয়া হচ্ছে।

 

ই, সেন্টার (ইলেকট্রনিক সেন্টার)

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে ডাক সার্ভিস গ্রামাঞ্চলে পৌছে দেওয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশের ৮৫০০ গ্রামাঞ্চলের শাখা ডাকঘরগুলোতে ই, সেন্টার চালু করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে কিছু কিছু শাখা ডাকঘরে এ সার্ভিস চালু করা হয়েছে।

 

নূতন প্রবর্তিত পোস্টাল ক্যাশ কার্ডঃ

 

 

 

     মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর প্রতিশ্রুত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ পোস্টাল ক্যাশ কার্ড চালু করেছে।  পোস্টাল ক্যাশ কার্ড হল একটি প­াষ্টিক কার্ড যাতে ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ আছে। উক্ত স্টিপে রক্ষিত তথ্যের সাহায্যে এই কার্ড ব্যবহার করে একজন গ্রাহক বাংলাদেশ ডাক বিভাগে একটি একাউন্ট খুলতে পারেন। মাত্র ৪৫ টাকার বিনিময়ে একজন একটি অত্যাধুনিক অনলাইন মানি রেমিটেন্স/লেনদেন সেবা একমাত্র পোস্ট অফিসেই পাওয়া সম্ভব। ৪৫ টাকার একটি পোস্টাল ক্যাশ কার্ড ক্রয় করলে গ্রাহক তাৎক্ষনিকভাবে  তার একাউন্টে ১০ টাকার ব্যালান্স পাবেন। এ বিষয়ে বাংলাদেশের  যে কোন প্রধান ডাকঘর হতে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।

 

 

মানসম্মত সাভিসসমূহ (Quality Services)

দেশের অভ্যন্তরে গ্যারান্টিড এক্সপ্রেস পোস্ট  (GEP)এর মাধ্যমে ডাকদ্রব্যাদি গ্রহণের পর দ্রুত পরিবহন করে ২৪ ঘন্টার মধ্যে প্রাপকের নিকট বিলি করা হয়। এক্সপ্রেস মেইল সার্ভিস (ইএম এস) এর মাধ্যমে দেশের বাইরে ৭২ ঘন্টার মধ্যে বিলি করা হয়।